মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

উপজেলার ঐতিহ্য

দৌলতপুরের নাম ছিল গোবর্ধনপুর। এখানকার মন্দিরে হিন্দু দেবমূর্তি গিরিগোবর্ধনের নাম অনুসারে এর নামকরণ করা হয়।কালক্রমে নদীভাঙনের ফলে দেবমূর্তিসহ মন্দিরটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। মুঘল শাসনামলে দৌলত শাহ নামে এক সুফি সাধক গোবর্ধনপুরে এসে তার খানকাহ প্রতিষ্ঠা করেন এবং বহু মানুষ তার শিষ্যত্ব গ্রহণ করে।পরবর্তীতে তারই নাম অনুসারে গোবর্ধনপুরের নামকরণ করা হয় "দৌলতপুর"। দৌলতপুর উপজেলার  মধ্যে অবস্থিত অবকাশ কেন্দ্র, কলেজ মাঠে সৃতিশোধ, পিএস উচ্চ বিদ্যালয়ে অবস্থিত সৃতিসম্ভ। এ সকল কিছুই দেখার মত।

দৌলতপুরের নাম ছিল গোবর্ধনপুর। এখানকার মন্দিরে হিন্দু দেবমূর্তি গিরিগোবর্ধনের নাম অনুসারে এর নামকরণ করা হয়।কালক্রমে নদীভাঙনের ফলে দেবমূর্তিসহ মন্দিরটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। মুঘল শাসনামলে দৌলত শাহ নামে এক সুফি সাধক গোবর্ধনপুরে এসে তার খানকাহ প্রতিষ্ঠা করেন এবং বহু মানুষ তার শিষ্যত্ব গ্রহণ করে।পরবর্তীতে তারই নাম অনুসারে গোবর্ধনপুরের নামকরণ করা হয় "দৌলতপুর"। দৌলতপুর উপজেলার  মধ্যে অবস্থিত অবকাশ কেন্দ্র, কলেজ মাঠে সৃতিশোধ, পিএস উচ্চ বিদ্যালয়ে অবস্থিত সৃতিসম্ভ। এ সকল কিছুই দেখার মত।

ছবি


সংযুক্তি



Share with :
Facebook Twitter